Expenses Management – Experience Sharing

Cut Expenses

আজ আমি কিছু লিখছি না। ঈশ্বর আপনাদের মতো বেশ কিছু মানুষের Advisor হিসাবে Serve করার সুযোগ আমায় দিয়েছেন তাদের মধ্যেই কয়েকজনকে আমি অনুরোধ করেছিলাম তাদের জীবনের অভিজ্ঞতা একটু সকলের সাথে Share করে নিতে। ওনাদের প্রত্যেককেই আমার অসংখ্য ধন্যবাদ রইলো অনুরোধ রাখার জন্য। Identity গোপনীয়তার কারনে এনাদের নাম, Service এর যায়গার নাম, কিছু Personal Details প্রকাশ করা হয় নি। চলুন দেখা যাক এবার ওনারা কি বলছেন।

*********************************************************************************

আমি একটি Private সংস্থায় চাকরী করি। 2008 সালে Asoke Babu র সাথে আমার পরিচয়। আমার Office এ সেই সময় প্রায় সবাই ওনার Client ছিলেন। যদিও আমি এখন ঐ Office এ আর নেই। একটা ঘটনা তখন দেখতাম আমাদের Office এ যাদের সঙ্গে Asoke Babu র কোনো Business Relation নেই, তারাও ওনাকে খুব বিশ্বাস করেন এবং উনিও ওনাদের সঙ্গে অনেক সময় দেন। আমার এটা খুব অবাক লেগেছিলো।

সেই সময় আমার Net Salary ছিল 48,750 টাকা। অথচ কোনো মাসের শেষেই আমার হাতে কোনো টাকা থাকতো না। Flat এর Loan এর EMI ও চলতো। আমি অনেকগুলো Credit Card ব্যবহার করতাম। এবং অনেক সময়ই ওখান থেকে Cash ও Loan নিতে হতো। এক কথায় পুরো ব্যপারটাই চলছিলো Present কে Manage করার চেষ্টা। Future এর কথা ভাবতেও সাহস পেতাম না।

একদিন ভরসা করে Asoke দা কে সব বললাম। উনি বললেন উপায় কি কিছু ভেবেছেন? তার পর অনেক কথার পর উনি আমার বাড়ী যেতে চাইলেন, বললেন সব কথা ওখানে হবে। উনি আমার আর আমার স্ত্রীর জন্য কিছু Article দিয়েছিলেন পড়ে রাখতে। তারপর একদিন আমার বাড়িতে গিয়ে আমার স্ত্রী, মা, বাবা সকলকে বসিয়ে সমস্ত কথা শুনলেন এবং এই ভাবে চললে পরিনতি কি হতে পারে তা খুব সুন্দর ভাবে বুঝিয়ে দিলেন। আমি বিরক্ত এবং একই সঙ্গে ভীতও হয়েছিলাম কারন আমি তো ভাবছি হাতে তো কিছুই মাসের শেষে থাকে না, এসব শুনে হবে টা কি। কিন্তু এর পর উনি আমাদের Regular Expenditure লেখার ব্যবস্থা করেদিলেন, আমার স্ত্রী লিখতো, আমি আমারটা আর আমার স্ত্রী যেটা লিখতো ওনার নির্দেশ মতো সবটা Excel এ তুলে রাখতাম। 6 মাস পর উনি আবার আমাদের সঙ্গে বসলেন এবং আমাদের ঐ পর্য্যন্ত লেখা Expenses এর Leakage গুলো বার করে সেই টাকাটাই যদি Long Term এর জন্য Save করি তাহলে সেটা কি হতে পারে দেখালেন। আমার মনে আছে আমার স্ত্রী ওটা দেখে লাফিয়ে উঠেছিলো।

তার পর আরো 6 মাস পর অর্থাৎ একবছর পর আবার ওনাকে আমাদের বাড়ীতে আমিই Invite করে নিয়ে এলাম, তখন আমরা নিজেরাই অনেকটা বাঁচিয়ে ফেলেছি। উনি আগেই আমার একটা Credit Card ছাড়া সব Surrender করিয়ে দিয়েছিলেন। এবার Insurance এর ভুল ভাল Product গুলোকে Rearrange করে আমাদের Term Insurance এবং Health Insurance করার Provision করে দিলেন। তার পর আমার Income ও বাড়লো খরচও বাড়লো। বর্তমানে আমাদের একটি মেয়ে হয়েছে তার বয়স মাত্র 9 মাস।

অবাক একটা ব্যপার আমি Share করতে চাই আমাদের Life Style এর কোনো পরিবর্তন না করেই উনি কিন্তু আমাদের শুধু Financial Life নয় আমাদের Family র Total Life টাই Change করে দিয়েছেন। আজ আমরা ওনার Mentorship এ Secured এবং নিশ্চিন্ত। উনি আমার আর আমার স্ত্রীর কাছে ভগবানের মতো। ওনার প্রত্যেকটি লেখার Print আমার কাছে অতি যত্নে রাখা আছে। আজ আমরা খুব খুব ভালো আছি শুধু নয় ভবিষ্যতের কথাও ভাবতে পারি কারন Asoke Da আমাদের বর্তমানকে Organize করে দিয়েছেন।

********************************************************************************

আমি বর্তমানে দিল্লীতে একটা Fortune 500 Company র Director পদে আছি। আমি English এ লিখে Mr Roy কে দিয়েছি বাংলায় লিখে দেওয়ার জন্য। যদি আমার ঘটনা থেকে কেউ Inspiration পান তো আমার থেকে আনন্দিত আর কেউ হবে না।

কোলকাতাতেই 2011 সালে ওনার সাথে আমার পরিচয়। ওনার ভদ্র স্বভাব আমাকে সর্বপ্রথম আকর্ষন করে। আমার তখন Net Income ছিলো Approximate 3.2 লাখ মাসে। শুনলে কেউ বিশ্বাসই করতে পারবেন না কোথা দিয়ে আমার পয়সা খরচ হয়ে যেতো ভগবান জানে। প্রতি মাসের শেষে দেখা যেতো হাতে কিছুই থাকছে না। ঐ সময়ে আমার যত রাগ গিয়ে পড়তো Income Tax Department এর ওপর কারন প্রত্যেক বছরে যেহেতু ওরা আমার মোটা টাকা Tax কেটে নিতো।আমার কিছু Insurance আর PPF এ কিছু Tax Savings এর জন্য Savings ছাড়া আর কিছুই ছিলো না।

Phone এ আমার আর Mr Roy এর অনেক আলোচনা হতো। উনি আমায় কিছু প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছিলেন। উনি আমায় বলেছিলেন আপনার Starting Salary তো এটা ছিলো না, ধাপে ধাপে তো বেড়েছে, তাহলে কম Salary তেও যে Problem ছিল আর বেশি Salary তেও তাই আছে মানে Problem টা কি টাকার না Mind set এর? আর একটা আমায় বোঝাতে চেষ্টা করতেন আমার Expenditure মানে অপরের Income। যে Time Sell করে আমি Income করছি সেটা খরচ করে ওনার ভাষায় Instant Gratification এর জন্য Actually আমি ওন্যকে Income করতে সাহায্য করছি। কোথায় আমার ভুল আমি সব বুঝতে পারছিলাম। কিন্তু আজ স্বীকার করতে বাধানেই আমার Ego আমায় ওনার কথা পুরোপুরি মেনে নিতে আটকাচ্ছিলো।

তারপর উনি Robert T Kyosiki র একটা বই পাঠালেন পড়ার জন্য। সেটাও আমার ব্যস্তাতার জন্য পড়া আর হয় না। উনি মাঝে মধ্যেই ঐ বই থেকে এক একটা Quotation পাঠাতেন। প্রায় মাস তিনেক পড় বইটাকে পড়েই ফেললাম তাও Flight এ যাবার সময়। আমার Thought Process টাই ঐ বইটা পড়ে পুরো Change হয়ে গেলো। এবার আমি Mr Roy এর কথার Impact গুলো বুঝতে পারলাম। ছুটি নিয়ে Misses কে নিয়ে কোলকাতায় এলাম। ওনার সাথে পুরো Agenda ঠিক করে বসার ব্যবস্থা করলাম। ওই Sitting টা আমি কোনোদিন ভুলবো না। ভদ্রলোকের Knowledge আর Politeness দেখে আমি অবাক হয়ে গেলাম। আমাকে যেটা অবাক করেছিলো উনি একদম Bookish নন। আমাদের Emotion কে গুরুত্ব দিচ্ছেন বেশি আবার আমাদের Want গুলোর থেকে আমাদের Need গুলোকে খুব সহজ সরল ভাবে বুঝিয়ে দিলেন।

কর্মসূত্রে আমায় India র অনেক Advisor এর সাথে Meet হয়েছে, এরকম মানুষ আমি দেখিনি। আমার স্ত্রী প্রথমেই ওনাকে বড় দাদা হিসাবে মেনে নিলেন। Mr Roy ওনার ওপর Cost Control এর অনেক Process বুঝিয়ে দিয়ে তার দায়িত্ব দিয়ে দিলেন। (Process গুলো ভীষন Personalize তাই জানালাম না।) আর ঐদিনই নিজেদের চাপে রেখেই 6 মাসের একটা Investment Plan বানিয়ে দিলেন। সে পরীক্ষ্যায় আমি সস্মানে উত্তীর্ণ হলাম। এখন তো উনি আমার Financial Planner, Financial Mentor Everything। আমার Earning এবং Expenditure পুরো Balanced Way তে চলছে। এখন আমি Income করেই খালাস, আমার Wife এবং Mr Roy সব দেখেন। বছরে একবার ওনার সাথে ওনার ভাষায় Plan Review করতে বসি আর নিজেকে Enrich ও Recharge করি।

আমি এই কবছরে ওনার সঙ্গে চলতে চলতে যেটা উপলব্ধি করেছি সেটা Just আপনাদের Share করছি, Money Earning করাটা আমি জানি কিন্তু How to manage Money এটা Different Art and Different Know How। আমার ভাগ্য ভলো যে এরকম একজন মানুষকে আমি পেয়ে গেছি।

********************************************************************************

আমরা স্বামী স্ত্রী দুজনেই একটি IT Company তে চাকুরী করি। দুজনেই 22 বছর বয়সে Lucrative Salary তে চাকরী Join করি। 28 বছর বয়সে আমাদের বিয়ে হয়। বিয়ের আগে এবং বিয়ের পরেও আমরা যেরকম খরচ করে পয়সা উড়িয়েছি কজন করেছেন আমার জানা নেই। খুব কম বয়সে হাতে Proper Financial Education ছাড়া অনেক পয়সা রোজগার করলে যা হয় আমাদের তাই হয়েছিলো। পরে ঐ খরচটাই নেশার মত হয়ে গিয়েছিলো। আমার যখন 30 বছর বয়স তখন Mr Roy এর সাথে 2012 সালে আমাদের পরিচয় হয়। আমার এক Office Colleague ওনাকে Refer করেছিলেন। প্রথম পরিচয়েই উনি আমার ওপর একটা Impact ফেলেছিলেন সেটা হলো ওনার Politeness এর জন্য আর উনি আমায় কোনো টাকা জমানোর কথা বলেন নি বলে।

কারন তখন আমি যাদের সাথে Associate করতাম আমাদের এবং সেই সমস্ত বন্ধুদের কিছু বদ্ধমূল ধারনা ছিলো “জীবন একটাই, যত পারো আনন্দ করে নাও”, “কাল কে দেখেছে, তাই কালকের জন্য ভেবে কি হবে”, “কৃপনতা করে বড়লোক হওয়ার থেকে খরচ করে আনন্দ পাওয়া অনেক বুদ্ধিমানের কাজ” “আমরা অনেক রোজগার করি সেটা সবাই জানে সেই লোভে অনেকেই Invest করার জ্ঞান দিতে আসে” ইত্যাদি। সত্যি বলছি এ গুলোই ছিল আমাদের মানসিকতা। আজ লিখতে গেলে লজ্যা পাচ্ছে।

আমার 4 টে, আর আমার Wife এর 3 টে Credit Card ছিলো। ঐ সময়ে প্রতি মাসে আমাদের দুজনের Income মিলিত ভাবে ছিলো প্রায় প্রতি মাসে 2.5 লাখ টাকারও বেশি। কারুরই বাড়িতে কোনো টাকা পয়সা দিতে হতো না। তাতেও আমাদের Credit Card এ Loan চলতো।

অবাক ব্যপার Roy Uncle প্রথম দিন আমাদের কেই পুরো সমর্থন করলেন এবং বোঝালেন চলো বড় কিছু করতে হবে না, শুধু Credit Card এর Loan টা কিভাবে শোধ করা যায় দেখি। এই লেখাটা ওনার Request এ লিখতে বসে আমরা দুজনে হাসছি আর ভাবছি মা যেমন বাচ্ছাকে চাঁদ দেখিয়ে ভুলিয়ে খাইয়ে দেয় ঐ ভাবে উনি আমাদের Expenditure Control Process টা Start করেছিলেন। অবাক ব্যপার ঐ আমরাই 6 মাস ও লাগেনি Credit Card এর সব Loan মিটিয়ে ফেললাম। তারপর উনি আমাদেরকে একটা বই Present করলেন আর পড়তে Request করলেন। প্রায়ই Phone করে জানতে চাইতেন কতটা পড়লাম ইত্যাদি। একদিন বিরক্ত হয়েই পড়ে ফেললাম এবং আমার Wife কেও পড়ালাম। আমরা পুরো Change হয়ে গেলাম। দৃষ্টি ভঙ্গিটাই Change হয়ে গেলো।

যে প্রশ্নগুলো আমাদের করা উচিত ওগুলোই এবার উনি আমাদের Mail এ করতেন। যেমন কেনো Invest করা উচিত? তোমাদের মত কি? Long Term Investment না Short term Investment কোনটা করা উচিত? Emergency Fund কি ভাবে বানানো যায়? তোমাদের Retirement কিরকম হলে ভালো হয়?, ইত্যাদি। এখন বুঝতে পারি উনি আমাদের ভেতরটাকেই এইভাবে পাল্টে ফেলেছিলেন। আমাদের Cost Control Process টা কিন্তু সঙ্গে সঙ্গে চলছিলো। এইভাবে আরো 6 মাস গেলো, Roy Uncle এর মুখে কিন্তু কোনো বিরক্তি নেই। তখোনো আমরা একটি পয়সাও Invest করিনি। একটা পয়সাও ওনাকে Fees দি নি। উনি আবার আমাদের সাথে বসলেন আর আমাদের Emergency Fund এর ব্যবস্থা করে দিলেন। ওটা মাস 5-6 এর মধ্যে করে ফেলার পর আমাদের Confidence অনেক অনেক বেড়ে গেলো। তখন আমার স্ত্রী আমাদের ভবিষ্যত নিয়ে একটু বেশিই তারাহুড়ো করছিলো, উনি কিন্তু একদম Cool, যেন Result ওনার জানা। ওনার প্রতি ভালোবসাটা ক্রমশ শ্রদ্ধায় পরিনত হলো। তারো অনেকদিন পর আমাদের Goal wise Investment Plan চলতে শুরু করলো।

বর্তমানে আমাদের 1 বছর 7 মাসের একটি মেয়ে হয়েছে। ওর নামও Uncle ই দিয়েছেন। আমরা এখন খুব ভালো আছি। বাবা মায়ের পরই আমাদের কাছে Uncle এর স্থান। আমাদের দুজনেরই বাবা মা ওনাকে ভীষন ভালো বাসেন। এখন আমরা চকরীর কারনে Switzerland এ রয়েছি। কতদিন থাকতে হবে জানিনা। ওনার কোনো লেখা আমরা Miss করার কথা ভাবতেও পারি না। Roy Uncle এর Request এই লেখা লিখতে গিয়ে পুরোনো কথাগুলো ভেবে আর কোথায় চলে যাচ্ছিলাম ভেবে আমরা সারা রাত্রি ঘুমোতে পারিনি।

আমাদের কথা শুনে যদি কেউ উপকৃত হন আমরা তার কাছে কৃতজ্ঞ থাকবো।

*******************************************************************************

আমাকে অশোক বাবু লিখতে বলায় বেশ বিপদে পড়ে গেছি। আমি একজন Professor, যখন রায় বাবুর সঙ্গে আমার প্রথম দেখা তখনকার কথা আগে বলি। তখন আমার বয়স ছিলো 30, এই বয়সেই আমি Insurance Premium আর House Loan এর EMI দিতে গিয়ে জেরবার অবস্থায় পড়েছিলাম। যার কারনে আমি ওনাকে সবসময় একটু এড়িয়ে থাকতাম। উনি কিন্তু কোনোদিনের জন্য আমাকে Investment এর কোনো কথা বলেনি, তবু আমি ওনাকে এড়িয়ে চলতাম। এই ভাবেই দু বছর চলে গেল। একদিন আমাদের Teachers Room এ দেখলাম অনেকেই অনেক ব্যপারে ওনার পরামর্শ চাইছেন এবং উনি কত সুন্দর ভাবে বুঝিয়ে তার সমাধান বলছেন। আমি কিন্তু নিজেকে গুটিয়ে রেখেছিলাম। আমি বুঝতে পারছিলাম আমি ঠিক করছি না। কিন্তু আমার এই ব্যপারে Self Image তখন খুব Low ছিলো। সব সময় ভাবতাম Salary টা একটু বাড়লেই অশোক বাবুর সাথে বসে সব ঠিক করে নেবো।

হঠাৎ আমারই এক Colleague আমার সমস্যাটার কথা তুলে দিলো। আমি যথারীতি ঢাল হিসাবে Loan এর EMI, Insurance Premium ইত্যদির কথাই বললাম। উনি সহমত পোষন করলেন এবং প্রথমেই স্বীকার করে নিলেন এমত অবস্থায় আমি যেভাবে চালাচ্ছি সেটা প্রশংশার যোগ্য। তার পর কথায় কথায় আমি বলেই ফেললাম কত Net Salary আমি হাতে পাই, উনি আমায় আমার খরচের ব্যপারে যখন জানতে চাইলেন তখন আমি যাই বললাম সেটাই আনুমানিক সেটা ওনার জেরায় সকলের সামনে প্রমান হয়ে গেলো। কারন উনি খরচের Break Up গুলো লিখছিলেন।

উনি আমাকে একটা Suggestion দিলেন। Mutual Fund এর Liquid Fund এ Salary পেলেই পুরো টাকাটা জমা করে দিতে। তার পর যখন ঠিক যতটুকু লাগবে ততটুকুই তুলতে। আমি মেনে নিতে না পারলেও Almost সব Colleague দের একরকম চাপেই রাজী হয়ে গেলাম।

আজ 4 বছর পর বুঝছি ভাগ্যিস রাজী হয়ে ছিলাম। তার পর ওনার কথায় বুঝলাম ATM থেকে টাকা তুললে যতটা দরকার তার থেকে সাধারনত বেশিই তোলা হয় আর খরচও হয় বেশি। আর ATM এর SLIP নেওয়া হয় যখন ওখানে Balance Amount টা দেখে খরচ কমানোর কথা তো মনেও হয় না। এর কিছু মাস পর উনি ঐ প্রত্যেক মাসের Excess টাকাটা থেকে একটা Emergency Fund বানিয়ে দিলেন। এবং ঐ Emergency Fund টার একটা Target করে দিলেন। ঐ Target অল্প কয়েক মাসেই Achieve হয়ে যাওয়ার পর উনি বললেন একদিন আমার বাড়ি এসে আমার Wife এর সাথে কথা বলবেন। আমি যত বলছি ও কিছু বোঝে না গিয়ে কোনো লাভ হবে না, উনি বললেন আমি আপনার বাড়ী যেতে চাইছি আর আপনি আমায় নিষেধ করছেন? আর কিছু করার ছিলো না। ওনাকে বাড়ি নিয়ে গেলাম।

এবার বলি ভাগ্যিস সেদিন অশোক বাবুকে নিয়ে গিয়ে ছিলাম। উনি ঘরের মেঝেয় বসে আমাদের সঙ্গে খুব ঘরোয়া ভাবে গল্প করলেন আর আমাদের Need গুলোকে দেখিয়ে দিলেন। আমি আমার Want গুলো নিয়ে ভাবছিলাম আর সেগুলো কি কি কারনে আমি পাচ্ছি না তাতেই Focused ছিলাম। এখন বুঝি এটা আমার চিন্তার Problem ছিলো। উনি দেখালেন বর্তমান অবস্থাতেই কিভাবে একটু Insurance Adjustment বা খরচের ছোটো Portion Adjust করে Need গুলো Achieve করা যেতে পারে।

আমার Misses খুব চুপচাপ স্বভাবের মানুষ সে বলল “হয়ে যাবে দাদা আপনি যা করার করুন”। বিশ্বাস করুন কয়েক মাসের মধ্যেই বুঝতে পারলাম Women Power কি শক্তিশালী। বাড়িতে কিছুই Change হলো না অথচ Plan Execute হয়ে গেলো। Logic দিয়ে ভেবে যেটাকে আমি ভাবছিলাম আয় না বাড়লে সম্ভব নয় সেটাকেই উনি কোনো Pressure না দিয়ে কত সুন্দর ভাবে করেদিয়ে আমাদের বাঁচালেন। পরে উনি আমাদের সমস্ত Need গুলির জন্য Planning করে দিয়েছেন। ওনার ঋন আমরা কোনোদিন শোধ করতে পারবো না। এত Humble, Honest এবং Knowledgeable Person আমি খুব কমই দেখেছি। Really আমি Mr Roy কে Financial Mentor হিসাবে পেয়ে গর্বিত।

Friends, আমি আমার অভিজ্ঞতায় যেটা বুঝেছি সেটা হলো, আপনার অসুবিধাটা আপনার Mind-set দিয়ে Solve করতে পারবেন না, কোনো একজন Experienced Financial Mentor এর সাহায্য নিন, বড়োজোর কি হতে পারে ওনার Planning আপনার পছন্নদ না হতে পারে এর বেশি তো কিছু হবে না, কিন্তু যদি আমার মতো Mr Roy কে পেয়ে যান তো সব Problem ই Solve হয়ে যাবে।

*******************************************************************************

আপনিও যদি মনে করেন এরকম কোনো Experience Share করবেন, করতেই পারেন।

Related Articles

Call Us

or

Our phone lines are available from Monday to Friday 10 AM to 6PM and Saturday from 10 AM to 3PM.

Are You Having Any

Financial Problem?Queries?

If you are looking for expert help on your financial problems,
then you can fill your contact details to book a FREE personal session with our expert financial consultants.

14 thoughts on “Expenses Management – Experience Sharing”

  1. Mr Roy, যেহেতু আপনার সাথে এখনো কোনো পরিচয় হয়নি তাই এর আগে ঠিক বুঝতে পারিনি আপনার কাজের ধরন কিরকম। আজ বুঝলাম। এর আগের একটা লেখায় আপনি লিখেছিলেন Mentor এর কথা। I think,you are not only a mere Advisor, you are really a Mentor. You can change someones financial life. I am grateful to read this article. Thanks all those guy who share their experience. Thank you also.

  2. Very inspiring. Although I don’t earn much, but 1 thing is quite stable in my life and that is my savings, and this too because of you. Thanks to you.

  3. Very good presentation for learning thru’ experience sharing. Tobe sharing ta ar ektu detailed hole bhalo hoto…kon kon jaygay khoroch ta control kora jay ba kotota porjonto kora jay seta janle bujhte subidha hoto. Tachhara high profile, high earning people ther mindset er songe low earning people ther mindset ba savings method similar hoy ki? Mone hoy goal tai dui case e duirokom. Pl. enlight us Dada.

    1. Sudip Babu, Thanks for Comments। আমি সকলের জন্যই লিখছি। এই Experience sharing যাদের দিয়ে যে উদ্দেশ্যে করানো হয়েছে সেটা হলো আমার আগের তিনটে লেখার Continuation। এখানে প্রথম ব্যক্তি এবং Professor Sir Middle Income Group এ Belong করেন। বাকি দুজনকে High Income Group বলা যেতে পারে।

      আমি Different Profile এর চার জনের Experience Sharing এর মধ্যমে এই Spirit টাই সামনে তুলে ধরতে চেয়েছি যে Earning সমস্যার সমাধান নয়। যার 3 লাখ মাসে Income তিনি 80% খরচ করে ফেলছেন আর যার 30 হাজার মাসে Earning তিনিও একই কাজটাই করছেন বলে দুজনে একই যায়গাতেই রয়ে গেছেন। মুশকিলটা হলো দুজনের প্রত্যেকেই নিজেরটাকে ভাববেন বিশাল Problem বলে আর ওপর জনেরটাকে ভাববেন হয় বোকামো নয় Luxury।

      Spirit টা হলো নিজের Surplus Money থেকে যদি কারুর নিজের Justified Financial Goal গুলির জন্য Invest করার মতো Money না থাকে তাহলে একবার ভাবুন কোথাও Leakage হচ্ছে না তো? যদি না হয় খুব ভালো। Please ওপোর ওপোর Lightly ভাববেন না। আপনার হাত থেকে মূল্যবান Time কিন্তু বেরিয়ে যাচ্ছে।

      Ankita তোমাকেও ধন্যবাদ।

  4. Dr Soumitra Pandit

    Ashoke babu you are simply great. Your sharing about financial matter must enriched all types of earning peoples those are coming in contact with this articles. I hope there are few persons like you those are simply devoted himself for the betterment of life of other people. Thanks a lot.

  5. দেবাশিস উকিল

    ধন্যবাদ রায়বাবু , বিভিন্ন জনের অভিজ্ঞতার কথা পড়ে এবং নিজেরও অভিজ্ঞতার কথা মাথায় রেখে একটা কথাই বলতে পারি আপনার সাথে যোগাযোগ হয়ে আমরা বিরাট বিপদ থেকে বেঁচে গেছি , না হলে অবসর বয়সে যে কি কষ্টকর পরিস্থিতি হতো সেটা খুব ভালো বুঝতে পারছি । পুনরায় ধন্যবাদ রায়বাবু ।

  6. সত্যি রায় কাকুর সঙ্গে যারই পরিচয় হয়ছে তারাই ভীষণ উপকৃত হয়েছে অনন্ত তাদের খরচের দিক গুলো ভালো করে ম্যানেজ করতে পেরেছে যাতে ভবিষ্যতে একটা ভালো wealth তৈরী করতে পারে। ধন্যবাদ রায় কাকু

  7. Very relevant situations, which we generally ignore but the fact is we still don’t understand the mistake unless it is very late…income can vary from person to person but end of the day planning gives us the comfort of avenging from such awkward situations…. good examples put up..

  8. Ekhane sakoler experience pore ashok da ke WhatsApp a aamar anubhuti janai…dadar anurodhei sei post ekhane share korchi…ashok dar sathe aamar porichoy matro 6-7 masher, aamar ak bondhusthaniyo dadar madhyome, fund management er proyojoniyota bujhchilam kintu kichutei kore uthte parchilam na…dada help korlen…jara ekhane tader experience share korechen tader tulonay aami khub ee nagonyo tobu share korchi… aaj jetuku savings korchi tar anektai ashok dar jonno… onar opor bharsha korei investment suru kori….bhebechilam continue korte parbo kina, kintu 7 mash dekhte dekhte hoye gelo!!! r 10 bochor aage ashok dar sathe dekha hole anek beshi nischinto hote partam… ashok da aapni bhalo thakun… aamader moto manusher jonno…

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error:
Scroll to Top