The Corona Effect & Our Thoughts On It

Covid 19 বা Corona Effect প্রায় প্রত্যেক মানুষের Normal জীবনধারার  প্রচুর পরিবর্তন করে দিয়েছে। এবং প্রত্যেকে কিছুটা ভয়ে বা বাধ্য হয়ে এই ঘর বন্দি ব্যপারটা মেনে নিয়েছেন বা নিতে হয়েছে। সম্প্রতিক অতীতে যখন কার্গিল যুদ্ধ চলছিল তখনও কিন্তু এখানে আমাদের মত সাধারণ মানুষের জীবন মোটামুটি Normal ই ছিল। তাহলে কি এই ধরনের বিপদ ভবিষ্যতে যুদ্ধের থেকে ভয়ঙ্কর রূপ নেবে? তা হলে কি এবার বাঙ্কার বুজিয়ে দিয়ে, Mig, সুখই, অগ্নি সব ছেড়ে রাসায়নিক অস্ত্র বা এই ধরনের বিপদের জন্য নিজেদের প্রস্তুত করতে হবে? জানি না।

বড়লোকের কাঁধে ভর করে যে রোগ এ দেশে এল তাতে সর্ব প্রথমে সবথেকে বেশি সরাসরি বিপদে পরল গরীব সাধারণ মানুষ।আর এর Delayed Effect এ বিপদে পরবে তার পর Week মধ্যবিত্ত শ্রেণী। আমাদের কাছে কত খবর আসছে কত মানুষ April মাসে পুরো মাইনে নাকি পাবেন না, অনেকে এ বলছেন April মাসেও যদি ঠিক এরকম Lockdown অবস্থা চলে তাদের Company নাকি Salary দিতে পারবে না বলে দিয়েছে।অনেকে আবার এই ভয়ও খাচ্ছেন যে পরিস্থিতি সামলে গেলে তাদের Job টা যে তারা ফিরে পাবেনই তার কোন নিশ্চয়তা  নাকি নেই। ভাবলে ভয় হয়।RBI তো তিন মাসের Loan EMI কাটা হবে না বলেছেন।

আমরা যখন Emergency fund রাখার  কথা কাউকে বলি তখন দেখেছি Almost সবাই ভাবেন Emergency situation মানে Medical Emergency এবং তারা সাথে সাথে বলেন আমার Mediclaim আছে বা এই ধরনের কিছু কথা।যা ভাবতে পারছিনা, যা অনুমান করতে পারছিনা সেটার সামনে পরলে যাতে আর্থিক ভাবে সামলাতে পারি তার জন্যই Emergency fund। অবশ্যই একটা Emergency fund সব সমস্যার সমাধান অবশ্যই করে দেবে না, কিন্তু সমস্যাটার সঙ্গে লড়াই করতে Help তো  করবে। একজন ব্যক্তি যিনি ভাবছেন তার job নাও থাকতে পারে, যদি তার অন্তত 6 মাসেরও একটা Emergency provision থাকে সেই অবস্থায় আবার Job খোঁজার যে মানসিকতা আর EMI এর চাপ, সংসার চালানর চাপ, ছেলে মেয়ের পড়াশোনার খরচের চাপ সব কিছু মাথায় নিয়ে Job খোজা কি এক হবে? ভাবলে ভাল হয়। আমরা roy’s FINANCE আমাদের Company র 6 মাসের Emergency ফান্ড Already করে রেখেছি, কিন্তু এই ঘটনা আমাদের শিখিয়েছে 6 মাস নয় আমাদের 1 বছরের Minimum Emergency fund এর পর আমাদের ready করতেই হবে। কারন অনেক Family (Including our TEAM as well as You) আমাদের এই Decission এর অপর নির্ভরশীল। 

এই পরিস্থিতি আমাদের roy”s FINANCE TEAM কে অনেক কিছু ভাবিয়েছে এবং আমরাও বেশ কিছু বিষয়ে নিজেদের আরও change করার পরিকল্পনা করেছি। যেমন আমরা অনেক আগেই আমাদের প্রত্যেকটি Transaction আপনাদের সামনাসামনি না হয়েই কিভাবে সেটাকে Successfully Execute করা যেতে পারে সেগুলো করে রেখেছি। যে কারণে আজ সমস্ত Mutual Fund Office বন্ধ থাকা অবস্থাতেও এমনকি আমাদের নিজেদের Office বন্ধ থাকা অবস্থাতেও আমরা আপনাদের প্রত্যেককে আপনাদের প্রয়োজনীয় সমস্ত Service দিতে পারছি। আমাদের TEAM কিন্তু তাদের নিজেদের ঘরে বসেই আপনাদের সমস্ত Requirement Fulfill করার জন্য Ready। 

এই সময় আমরা roy’s FINANCE TEAM এর প্রত্যেক TEAM Member প্রত্যেকদিন 2 ঘণ্টা নিজেদের মধ্যে Phone Concall, Video Meeting, এগুলোর মাধ্যমে নিজেদের আর ও Update এবং Upgrade করছি। ভবিষ্যতে এই Video Meeting এর সাহায্য নিয়ে আমরা কিভাবে আপনাদেরকেও আরও Better way তে Serve করতে পারি তার জন্য System আমরা Ready করছি। আজ যেকোনো ব্যক্তি পৃথিবীর যে প্রান্তেই থাকুন একদম Initial stage থেকে  শুরু করে তার Required Investment তাঁর সাথে দেখা না করেই কিভাবে Start করা যায় সে System আমাদের Ready। আমরা এই পরিস্থিতির কারণে অনেক কিছু ভাবতে বাধ্য হয়েছি কারণ We are commited to give you SAFETY & SECURITY। 

Need আর Want এর চিরন্তন লড়াইয়ে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে Want ই জিতে যাচ্ছে, এটাই দেখছি। যার ফলে বহু মানুষ অনেক  সময় হয়ত ভুলেই যাচ্ছেন জীবনের জন্য জীবিকা না জীবীকার জন্য জীবন? Family আগে না Work আগে? Success বস্তুটা কি? এই পরিস্থিতিতে ঠাণ্ডা মাথায় ভাববার বোধহয় একটু সময় এসেছে। আমি দেখেছি অনেক মানুষ একটা job পেয়ে যাওয়ার পর আর নিজেদের Update এবং Upgrade করার তাগিদ বা প্রয়োজনীয়তা হারিয়ে ফেলেন এবং সময়ের অজুহাতের আড়ালে নিজেকে আড়াল করেন। পরে তাকে ওই জীবিকা Modern Slave তৈরি করে ফেলে।

আজ অনেকেই বিদেশে বসে বুঝতে পারছেন যে এই দেশে নেই হয়ত অনেক কিছু, কিন্তু আছেও  অনেক কিছু সেগুলো অনেকে আজ Phone এ বলছেন। আমাদেরই একজন Investor এর বয়স জনিত কারণে এই গত কাল জীবনাবসান ঘটে গেল, তার এক ছেলে, এক মেয়ে, দুজনেই USA তে থাকে, তারা বাবাকে শেষ দেখাটাও দেখল Video র মাধ্যমে। সব কাজ করছে আত্নিয় পরিজন। অথচ আজ কত জন মানুষ Networking Socialising কে গুরুত্ব দেন। নিজের হাতের Mobile Phone র দিকেইতো  তাকিয়ে পথ চলেন। 

কীজন্য আমায় পৃথিবীতে আনা হল? আর আমি কিসের জন্য দৌড়চ্ছি? Sorry, very sorry, আমার ভাবনাটা just share করলাম, আপনাদের মতামত পেলে ভাল হয়।

Related Articles

Call Us

or

Our phone lines are available from Monday to Friday 10 AM to 6PM and Saturday from 10 AM to 3PM.

Are You Having Any

Financial Problem?Queries?

If you are looking for expert help on your financial problems,
then you can fill your contact details to book a FREE personal session with our expert financial consultants.

13 thoughts on “The Corona Effect & Our Thoughts On It”

  1. খুব সময় উপযোগী এবং খুব প্রয়োজনীয় Article বলে আমি মনে করি। Asoke দা আপনারাই আমাদের ভরসা। আপনাদের আর ও শ্রিব্রিধি কামনা করি।

  2. Dr Indranil Samanta

    I shall not discuss the biological consequences of COVID 19 infection here. The social and economical consequences of any pandemic is enormous which is rightly pointed out by Asokebabu in his simple lucid language. COVID has taught us importance of emergency fund creation, family bonding and basic values of life which we forgot during our rat race. Kudos to Asokebabu… Please continue .

  3. Emergency fund er byapare Roy’s finance amader onekdin thekei aware korbar chesta korchhen. Recently Rotary Sadan er programme e teo bishoyti alochito hoechhe. Kintu sudhu fund create kore amra emergency situation ke kotota handle korte parbo ? Asol problem ta face korte hole amader lifestyle ,habits, mindset etc. change korte hobe. Need ebong want… duto bishoy clear kora dorkar. Economically stronger hobar songe amra amader subtle feelings gulo bodhhoy harie felchhi…harie felchhi amader essential self sufficiency habit gulo o. Nahole full nation lockdown hoe thaka obosthatei manuser kandogyaner eto deficiency media tule dhorte parto na. Economic sufficiency amader besh kichhu bishoy e obossoi empower kore…jodi amra constantly nijeder knowledge development er moddhye rakhte pari, amader skill development er kaje sobsomoy byasto rakhte pari. Kintu kono development I amra chalie jete parbo na jodi amader personal health as well as social health consciousness bhalo jaygay thake. Etao mindset change chhara sombhob noy. Agami prithibite bhalo bhabe humankind ebong natural resources ke thakte ba rakhte hole samne thaka challenge gulo last month dhore amader samne sposto hoe gechhe. Amra sobai jani onek kichhu , kintu kori na pray kono kichhu I. Samner dingulo amader kachhe janar ba bhabar noy…chhoto chhoto kore korbar. Sobai jodo amra nijeder chhere onno sokoler jonno kichhu kichhu korte pari…tahole hoyto amra sobai mile crisis ke handle korte parbo. Social distancing corona ke hoyto combat korte kaje lagchhe….kintu future e eta amder mankind ke aro crisis e felbe. Emergency Fund create korte hobei…Tobe seta enjoy korte hole amader need ke justify korte hobe…ja want ke automatically control korbe…songe amader personal habit gulote self sufficient hote hobe. Society r jonno amader sympathetic noy…. empathetic hote hobe. Amra ashabadi…amra parboi…amader parte hobei. Thanks to all dada.

  4. Atanu Chakrabortty

    Perfectly noticed us Mr Ashoke Roy, that where we are now socially, we are now too self centred, only concentrated in smartphone, no socialising, no bonding, less communication with neighbour’s, relatives siblings etc, this was not our India, really our country has changed a lot throughout last 10 year’s. People were enjoyed earlier in market, bank, social gatherings etc mutual sharing about each other’s health, family matters, extending helps each other, now we are used to be in online marketing, online transferring, thus isolated self, neighbour’s unknown mostly. Mr Ashoke Roy & his team is sincerely trying to support not only on finance advice, but awaring us of our social bonding & responsibilities, hats off to Roy’s Finance

  5. Priyanka.paul sadhukhan.

    Dada article ta puro ajker bastob situation. Sottie prottek ta person K emergency fund concept ta khali vablaye hobay na kortay e hobay,nejer ,nejer family r upcoming jaykono turmoil er sathay lorar jonno.
    Apnar prottek ta statement khub useful aye article ay dada.

  6. Arindam Bhattacharya

    Akhon amra bujhte parchi emergency fund er gurutwo kotota. Khub burning issue ajker alochonar bisoy bastu. Practical and dangerous.

  7. ধন্যবাদ রায়বাবু, এইরকম মহামারী বা অতি মারি বা যেকোন রকম ইমারজেন্সি পরিস্থিতির জন্য কম করে ছয় মাসের একটা ইমারজেন্সি ফান্ড তৈরি করতে আপনি বহু বছর আগে আমাকে বলেছিলেন এবং করেও দিয়েছিলেন । আবার এই রকম ইমারজেন্সি পরিস্থিতিতে যেখানে সব রকম পরিষেবা বন্ধ এখানে রায় ফিন্যান্সের টিম পরিষেবা দেওয়ার জন্য বদ্ধপরিকর এটা একটা অভূতপূর্ব ঘটনা । এইজন্য রায়বাবু এবং উনার টিম মেম্বারদের আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা এবং কৃতজ্ঞতা জানাই । রায়বাবু আপনার এই দূরদর্শিতা বা দূরদৃষ্টির জন্য আমরা অনেক সময় বিভিন্ন বিপদ থেকে রেহাই পাই । ” We are committed to give you SAFELY AND SECURITY ” এর জন্য রায় ফিনান্সের টিমকে কৃতজ্ঞতা জানাবার আমার কোনো ভাষা নেই । পুনরায় ধন্যবাদ রায়বাবু ।

  8. ভবানী প্রসাদ চক্রবর্ত্তী

    যথার্থ চিন্তা , যথার্থ দিগদর্শন। কিন্তু ক’জন এই চিন্তাধারার অনুসারী? এটা বোধহয় একশ্রেণীর লকডাউন মানার মত , জানি বুঝি সবই কিন্তু মানতে অনীহা। আপনি যেটা বারবার উল্লেখ করেন যে আপনার সঙ্গের প্রথম পাঠ হল এই আপৎকালীন পরিস্থিতির জন্য একটা আপৎকালীন অর্থভান্ডারের ব্যবস্থা করা। কিন্তু হয়ে ওঠে না। সুতরাং পরিস্থিতি যখন হঠাৎ দরজায় কড়া নাড়ে তখন আমাদের পুরোপুরি অপ্রস্তুত অবস্থায় পায় এবং ধাক্কা সামলাতে আমরা বেসামাল। খুবই সত্যি কিন্তু সামনের দিনগুলো অত্যন্ত তরঙ্গসঙ্কুল , সঠিকভাবে পাড়ে পৌঁছনোর কান্ডারী কিন্তু আপনিই।

  9. Thanks once again for sharing such an important issue with us… importance of emergency fund can’t be ignored at all. In the present scenario, the importance of such funds is well felt by one and every one. Kudos dada!!

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error:
Scroll to Top