Why Even Academically Sound People Might Take Childish Financial Decisions?

আগের একটা লেখায় আমি লিখেছিলাম কিছু Basic Financial Awareness এর কথা, যেগুলোর অভাব India তে ব্যাপক। তো, যদি আপনার আগের দিনের Article টা না পড়া হয়ে থাকে তাহলে এই LINK টা CLICK করে আগে পড়ে নিনদেখুন, RISK কে সবাই এড়িয়ে থাকতে চায়। But মাথায় রাখতে হবে RISK আর REKLESS এই দুইয়ের মাঝখানে যেটা আছে তা হল AWERNESS।যার যে ব্যপারে যত AWERNESS বেশি তিনি ঐ ব্যপারে RISK কে ততটাই Manage করতে পারেন। 

দেখুন, হয় কি, আমরা কেউ মানি আর নাই মানি,  আমাদের Mind is our Control Room, Mind is the greatest Asset। কি রকম বুঝিয়ে বলছি। ধরুন আপনার বাড়ি থেকে Rail Station যাবার একটা চালু রাস্তা আছে, সবাই ঐ রাস্তা দিয়েই যাতায়াত করেন।Short Cut এ যাবার একটা পরিত্যক্ত যায়গা আছে কিন্তু ওটা দিয়ে যাওয়া আসা যায় না, কারন যায়গাটায় বড় বড় ঘাস এবং জংলি গাছে ভর্তি। এবার কিছু মানুষের বড্ড তাড়া, তারা কি করলেন, ঐ ঘাস জঙ্গলের মধ্যেই ফাঁক ফোঁকোর দিয়ে যাতায়াত শুরু করলেন। এরা আবার ওন্যদের এই Short এ Station যাওয়ার সুবিধাটা বললেন ও। এবার আরও মানুষ তখন ঐ রাস্তা দিয়েই যাতায়াত শুরু করলেন। আস্তে আস্তে ওটাই হাঁটা পথের একটা Permanent রাস্তা হয়ে গেল। হয়ত আপনিও তখন ঐ রাস্তাই Station যাওয়ার জন্য Use করতে শুরু করলেন।এরকম নিশ্চয়ই আপনারাও দেখেছেন। প্রচুর Shotcut রাস্তা এই ভাবেই তো তৈরী হয়।

আমাদের Mind এও ঠিক একই ঘটনা ঘটে। আমরা অনেক দিন ধরে দেখতে দেখতে Financial Product কে কখন যেন নিজের চেনা Product বলে ভেবে নি। কারন Mind ঐভাবেই তখন Frame হয়ে যায়। তখন ঐ Product থেকে নিজেকে আলাদা করতে  Mind বাধা দেয়।কিন্তু Economy তো One Frame এ কখনওই আটকে নেই, তাই না? Economy, Market, Demand, Supply সব কিছু প্রতিনিয়ত Change হচ্ছে, ঐ ব্যক্তি সেটা জানেন ও এবং বোঝেন ও, But ওনার Mind এ যেটা ঠিক যেরকম ভাবে Frame হয়ে আছে সেটা কোনো Logic কেই তখন Mind এ ঢুকতে দেবে না। এর পর আছে Mind এর মধ্যে থাকা একটা In Built ভয়ঙ্কর Fear, সেটা হল “Fear of Unknown” (Details জানতে নিচের video টা দেখে নিতে পারেন) ওই UNKNOWN FEAR তখন তাকে বাধা দেয়। নীচের ছবিটা দেখলে পরিস্কার বুঝতে পারবেন আমি কি এবং কেন বলছি। 


 

Grand Fathers Age মানে আমাদের দাদুর আমলে, মানুষ রান্না বান্না ইত্যাদি করার জন্য Generally গুল, ঘুঁটে, কয়লা, কাঠের জালন ইত্যাদি ব্যবহার করত। আর ধরুন দুরবর্তি কোনো স্থানে যাওয়ার জন্য গরুর গাড়ি বা ঘোড়ার গাড়ি ব্যবহার করত। মানছেন তো? এবং সেদিনও মানুষ আর্থিক ব্যপারে Bank,Post Office আর Insurance কেই Use করত। কিছু মানুষ Gold এবং জমি কেও ব্যবহার করতেন। তাই তো? চলুন এবার ছবিটাতে দেখুন বাবার আমলে কি হল, বেশিরভাগ মানুষের Mind কিরকম খুব সহজেই যুগের সঙ্গে তালমিলিয়ে রান্নার জন্য গুল, ঘুঁটে, কাঠ ছেড়ে Gas Oven ব্যবহার শুরু করল। আবার যাতায়তের জন্য গরুর গাড়ি, ঘোড়ার গাড়ি ছেড়ে দিব্যি Train, Bus, Motor গাড়ি ব্যবহার শুরু করে দিলো। কি ঠিক তো? এই Changes গুলোর জন্য কোনো মানুষকেই বলতে হলো না,  Awer ও করতে হল না, শেখাতেও হল না। সবই মানুষ খুব সুন্দর ভাবে অপরকে Copy করে নিজেরাই করেনিল। কিন্তু বাবার আমলের Finance Product কিন্তু সেই দাদুর আমলেও Bank, Post Office এবং Insurance আগের মতোই রয়ে গেল। ওটাও Copy হলো। ভাবতে পারছেন?

এবার ছেলের আমলে তো আমূল Change। Gas Oven হয়ে গেল Micorowave Oven। আর Train হয়ে গেল Aeroplane, নতুবা  Personal Car না হলে Cab। এই ছেলের আমলে ঐ গুল, ঘুঁটে, গরুর গাড়ি, ঘোড়ার গাড়ির স্থান হল Musium এ। আজ এই Generation এর ছেলে মেয়েরা ঐ Musium এ গিয়ে ওগুলো দেখে এবং তারা জানতে পারে তাদের দাদুর আমল বা বাবার আমলে তাদের কত কষ্টের জীবন ছিল,সুযোগ সুবিধা কত কমছিলো। কিন্তু মজার ব্যপার হলো, ঐ ছেলের আমলেও Finance Product এর কোন Change কিন্তু হল না। রয়ে গেল সেই দাদুর আমলের Bank,Post Office, Insurance Product। বাকিদের স্থান হল Musium এ But এদের স্থান কিন্তু মানুষের Mind এ Permanently Frame হয়ে গেছে । 

কিন্তু কেন এমন হয়? বহু Academically Educated মানুষও কেন এই রকম Behave করেন? ভাবুন তো একবার? মানুষ তো সহজেই গুনীন, এসব ছেড়ে, ওঝা ছেড়ে  কবিরাজ, হাকিম, বদ্যি, তার পর ওগুলো ছেড়ে LME Doctor, General Physician, আর আজ শরীরের প্রত্যেকটা অঙ্গের জন্য Separate Specalist Doctor এর কাছে নিজেরাই যাচ্ছেন । কাউকে তো শেখাতে হছে না? কিন্তু Fianance এর খেত্রে এই Changes টা মানুষ সব জেনে বুঝেও কেন করতে পারে না? তার অন্যতম বড় একটা কারন হল তার Mindবাকি সব বিষয় মানুষ খুব সহজেই অন্যকে করতে দেখে চট করে Copy করে নেয়। যেমন ঐ আগের Example এ পায়চলা রাস্তাই হোক, আর গরুর গাড়ি ই হোক। 

আমাদের Society তে বেশ কিছু বিষয় আছে যেগুলো সকলের সামনে না এনে আড়ালে রাখাই প্রচীন রীতি। যেগুলো সকলের সঙ্গে Share করা হয় না। আর্থিক বিষয়টাও ঐ রকমই একটা বিষয়। এটা Generally কেউ কাউকে Share করতে চায় না। আর উল্টো দিকে মানুষ জন্ম লগ্ন থেকে By Nature Copy করতে খুব ভালো বাসে।

ভাবুন Expenses করার Habit কিন্তু বাবার আমলে বা দাদুর আমলে অতটা ছিল না। তাহলে ছেলের আমলে কি করে হল? চোখের সামনে পাঁচ জনকে করতে দেখে Copy করে নিয়েছে। মনেকরে দেখুন এই Finance এর ব্যপারেই একটা বিষয় বলছি, একটা সময় ছিল যখন প্রচুর মানুষ বছরের শেষে March মাসে দল বেঁধে Tax Savings এর জন্য Insurance করার জন্য ছুটতেন। NSC কাটার জন্যও Post Office ছুটতেন। ঐ বড় Line এ মানুষকে দেখে আরো অনেক মানুষ সেটাকে Copy করে তিনিও চলে আসতেন। এমনকি কি বলব, চিট Fund Agent কারুর বাড়ি রোজ আসছে দেখলে পাশের বাড়ির লোকও তাকে চুপি চুপি ডেকে নেয়। এটাই হয়, মানুষ Social Confirmation এ খুব ভরষা করে। প্রতিটা মানুষ আমরা অপরকে Copy করতে ভালবাসি।

আজ Mutual Fund কে Advertisement দিয়ে বলতে হচ্ছে “Mutual Fund Sahi Hai” । অথচ ঐ Mutual Fund এই UTI Mutual Fund এর Bond এ একটা সময় মানুষ ভিড়  করে টাকা রাখত।কারন ওটা কেউ আড়াল করতে পারেনি। ধনতেরাস এ অনেক মানুষ Gold, Silver কেনেন এই দেখে আরো মানুষ ওটকেই Copy করে নেয়। অক্ষ্যয় তৃতীয়া য় খমতা না থাকলেও জনতা করছে দেখে অনেকেই ওটাকেই Copy করেন। ব্যবসায়ীরা কি আর এই সুযোগ ছাড়ে? ওরা এর সঙ্গে লক্ষ্যী দেবতাকে জুড়ে সুকৌশলে Marketing শুরু করল। 

Actually  খুব কম মানষের Mind তার নিজের Control এ থাকে। বেশির ভাগ মনুষকে তার Mind ই Control করে। ব্যপারটা একটু ভাড়ি হয়ে গেল তো? সহজ করে বলছি, বাড়িতে যাদের পোষ্য কুকুর থাকে, তারা তাদের ঐ পোষ্যটিকে Belt বেঁধে বাইরে নিয়ে আসেন, আর মজার ব্যপার হলো, তারা ভাবেন এবং বলেনও যে তারা কুকরটিকে নিয়ে বাইরে বেরিয়েছেন। তাই তো? এই পর্য্যন্ত সব ঠিক আছে। কিন্তু রাস্তায় বেরিয়ে কে কাকে নিয়ে বেরিয়েছে, তা কিন্তু বোঝর আর উপায় থাকে না। কারণ রাস্তায় কুকুর টি যায় আগে আগে আর তার মালিক থাকে পিছনে। কুকুর দাড়িয়ে গেলে মলিকও দাড়িয়ে যেতে বাধ্য। মালিকের খুব চেনা পরচিত কারুর সাথে হটাৎ হয়ত দেখা হয়ে গেলে, মালিক হয়ত তার সঙ্গে কথা বলতে চাইছেন কিন্তু কুকুর চাইছেনা বলে তাকে বলতে হয় “পরে কথা বলব”। অথচ কুকরের মলিক বলেন তিনি কুকুরকে নিয়ে বেরিয়েছেন। ভাবুন একবার! Mind ও অনেক মানুষের Control এ থাকে না, অথচ তারা ভাবেন যে তার ভাবনা অনুযায়ীই তিনি সব কাজ করছেন।তাদের অজান্তেই তার Mind এর Control চলে যায় অন্যের  হাতে। আজ তো Maximum মানুষের Mind কে Control করে নিয়েছে বাজার, Media, আর Whats App এ Circulate হওয়া কিছু বাজে Gosip। এখানেও লক্ষ্য করলে দেখবেন মানুষ কত সহজেই অন্যকে Copy করেন।

আর একটা বড় কারন হল Social Recognisition। একজন কোথায় টাকা জমাচ্ছেন, কত টাকা Invest করছেন, কেন Invest করছেন সেটা অন্য কেউ জানতে পারে না। অনেকের তো আবার বাড়ির অন্য Member রাও সেই Information জানেন না। সব গোপন থাকে। আমাকে তো এই করনেই  আলাদা একটা Chamber করতে হলো। শুনলে অবাক হবেন, অনেকে আমাকে অনেক সময় এরকমও বলেন যে তাদের Investment Prtfolio টা যেন আমি আমার Office Staff এ দের কেও Disclose না করি। ভাবুন একবার! যখন তাদের বলি আসুন আপনার Success Journey টা একটু অন্য সকল মানুষদের  Share করি, তাতে অনেকেই হয়ত উপকৃত হবেন। ওনারা রাজী হন না। এমনকি Blog এ Comment ও অনেকে এই কারনেই লিখতে চান না। অথচ ঐ ব্যক্তিরাই যখন অনেক দিনের স্বপ্নের একটা গাড়ি কেনেন বা বিদেশে কোথাও ঘুরতে যান সেগুলো কিন্তু সকলকে share করতে কোনো Hesitate করেন না । কাড়ন ওটা করে Social Recognisition মেলে। কোথায় টাকা জমিয়ে সফলতা ঐ Recognisition দেয় না, বরং অন্য কিছু হয়ত করে। Finance আমাদের Mind এ আমাদের Culture এ এই ভাবেই অনেকের মধ্যে রয়েছে। 

Money Belief কোন মানুষের Mind এ কি Frame হয়ে আছে কে জানে But যা Belief Mind এ Frame হয়ে থাকে সেই মানুষ ঠিক সেই ভাবেই আচরন করেন। কয়েকটা Belief এর Example দিচ্ছি- “জীবন একটাই, এই জীবনটাকে Enjoy না করে টাকা টাকা করে কি হবে” এই ব্যক্তির Belief হল যারা Money Save করে তারা Life এ Enjoy করে না। “ আমি কৃপনতা করতে পারব না”- এরকম অনেকের Belief আছে Save করতে হলে কৃপণ হতে হবে। “টাকাই কি জীবনের সব” আমার প্রশ্ন হল Without Money জীবনই কি সব? “টাকা যত অশান্তির কারন”- তার মানে যাদের টাকা নেই তারা শান্তিতে আছে? এই রকম হজার Belief কত মানুষের Mind এ Frame হয়ে আছে তার ঠিক নেই।

আমরা Human Beings সব সময় অন্যকে Copy করতে ভালবাসি এবং করিও। খাওয়া দাওয়া, পোশাক পরিছদ, আচার ব্যবহার, যানবাহন, সব যায়গাতেই এটাই হয়।যে বিষয় গুলো আড়ালে ঘটে, সেগুলোতেই হয় যত সমস্যা। শরীরের কোন অংশে Problem হলে আমরা খুব সহজেই সেই ডাক্তার এর কাছে চলে যাই, অথচ মানসিক Problem হলে (মন তো শরীরেরই একটা অংশ, Problem হতেই পারে ) মনের ডাক্তার এর কাছে যেতে সঙ্কোচ করি। কারন Society বলবে হয়ত অন্য কথা।একজন হয়ত বাড়ি করতে চান, তিনি কিন্তু ঠিক রাজমিস্ত্রির কাছেই যান, ভুল করে নিজে নিজে ইট গাঁথতে লাগেন না। Finance এর কোন Problem এর Solution কেউ কোন Financial Advisor এর কাছে গিয়ে উপকৃত হলে যদি ঐ ব্যক্তি অন্য কাউকে বলেন, তখন ঐ অপর ব্যক্তির ঐ Financial Advisor এর কাছে আস্তে কোন অসুবিধা হয় না।না হলে Generally খুব কম মানুষ নিজে থেকে আজও ভাবতে পারেন না যে শরীর এর Problem solution এর জন্য যেমন ডাক্তার এর কাছে যেতে হয়, বাড়ি নির্মাণের জন্য যেমন রাজমিস্ত্রির কাছেই যেতে হয় ঠিক তেমনি Financial Problem Solution এর জন্য Financial Advisor এরই প্রয়োজন। 

আমি এখানে যা কিছু লিখলাম সবটাই আমার অভিজ্ঞতা, একান্ত ভাবে আমার নিজস্ব ভাবনা। যে কেউ ওন্যভাবে ভাবতেই পারেন। আমি কিন্তু আপনার ভাবনাকেও শ্রদ্ধা করি। আপনাদের প্রত্যেকের Comments এই লেখাটায় অন্তত পাবো এটুকু আশা করতেই পারি। হয়ত আপনার Comments ই আর একজনের Financial Life এ কোনো Change এনে দিতে পারে।

Video

3 Types of Fear in Wealth Creation – How to Overcome? In Hindi by Asoke RoySimple & Easy Way To Create Wealth- I

Simple & Easy Way To Create Wealth- I

Related Articles

Call Us

or

Our phone lines are available from Monday to Friday 10 AM to 6PM and Saturday from 10 AM to 3PM.

Are You Having Any

Financial Queries? Problems?

If you are looking for expert help on your financial problems,
then you can fill your contact details to book a FREE personal session with our expert financial consultants.

19 thoughts on “Why Even Academically Sound People Might Take Childish Financial Decisions?”

  1. Very Important Article।

    এতো সুন্দর সাইকোলজি Analysis করে যে ভাবনাটা আপনি আমাদের সামনে তুলে ধরেছেন সেটা এককথায় অনবদ্য।ঠিকই বলেছেন, এই ভাবেই তো হয়।

    Mindset কি ভাবে Form হয়, সেটা বুঝলাম। ঐ কুকুরের Example টা Excellent। Thanks Mr Roy, আরও এই ধরনের লেখা পেলে উপকৃত হব।

  2. Mr Roy, একটা ছবির মাধ্যমেই তো আমাদের Actually Change না করার মানসিকতা টা বুঝিয়ে দিয়েছেন। এর পর সেটা কেন মানুষ করছে তার এত গভীর সাইকোলজিক্যাল ব্যখ্যা অসাধারণ।

    এই লেখাটা পড়তে পড়তে ভাবছিলাম আমাদের অজান্তেই আপনি তো আমাদের Mindset টাই Change করে দিয়েছেন।So Called Academically Educated Person ই হোক বা না হোক, একজন ব্যক্তি র সব বিষয় জানা তো কখনই সম্ভব নয়। তাঁর যে বিষয় জানা নাই সেই বিষয়ে তিনি যদি Discission নিজে নিজে নেন তাহলে Maximum খেত্রে তা Childish ই হবে। আমি এ ব্যপারে আপনার সঙ্গে সম্পূর্ণ একমত।

    এই লেখাটার Value আমরা কজন দিতে পারব জানি না। আপনি একের পর এক অসাধারণ চিন্তাধারা আমাদের সামনে তুলর ধরছেন। এই লেখাগুলো বই আকারে না হওয়াটা বোধহয় অন্যায় হছে।আপনাকে অসংখ্য ধ্যনবাদ।

  3. এ ধরনের Article আপনার পক্ষেই লেখা সম্ভব। মানুষের Behaviour কে পর্যবেক্ষণ করার এক অসাধারণ খমতা আপনার আছে। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে Mind Reading Power।

    মৌলিক চিন্তা যুক্ত একটা অসাধারণ Article। RISK আর REKLESS এই দুইয়ের মাঝখানে যেটা আছে তা হল AWERNESS- আমি একজন Doctor হিসাবে এটা খুব মানি। ধন্যবাদ আপনাকে।

  4. Asoke বাবু, আপনার লেখা তো অনেক দিন ধরেই পড়ছি, আমার কাছে এটা One of the best Article।এই লেখাটায় আপনি মানুষের Mind, Psychology, Behaviour,Financial thought সঙ্গে আপনার নিজস্ব Experiance সব কিছু মিলিয়ে একটা অসাধারণ Article এ পরিণত করেছেন।

    এই Article টা কারুর miss করা উচিত নয়।

  5. এক কথায় ফাটাফাটি, সেরার সেরা । ধন্যবাদ রায়বাবু ।

  6. Ashoke da, it is a great article. Day by day I can realize what a good decision I had taken by connecting with you. You may share my story with anybody if anyone can get help to make a right decision in life. Regards, Ajoy Kumar Mondal.

    1. Mind setup টা উদাহরণ দিয়ে খুব সুন্দরভাবে বুঝিয়েছেন। অসংখ্য ধন্যবাদ।

  7. Paramita Mukherjee

    This article is a real eye opener. The problem of academically brilliant and educated persons is they forget that they are educated in their field and like there is a specialist doctor for each organ, financial considerations are best left in the hands of a financial advisor who understands it better than maybe a very successful medical practitioner, who is a specialist in his field.
    It’s very true that in today’s world, understanding finance is not everybody’s cup of tea

    1. Darun! Financial Advisor hisebe apnake sobai janen , chenen. Kintu human psychology analysis kore personal finance e setar application e apnar panditto amader kibhabe somriddho korte pare ,egie nie jete pare setai bojha jay ei presentation e. Onekdin dhore apni bibhinno bhabe investor mindset ki seta bojanor chestsa korchhen…kintu seta kotha theke kibhabe toiri hoy seta ekebare root level e bojano…ek kothay outstanding. Apnake amra onekei mentor kore niechhi onekdin aagei…onnoder o bolobo apnar advisory o guidence er sujog nebar jonno. Thanks dada

  8. Thank you sir for such a beautiful write-up.
    I always face following two problem:
    1.Mindset to control expenses 2.Mindset for investment .
    While I read your blog, I become charged and set my mind to control expenses&improve investment.
    BUT MOST DIFFICULT IS TO MAINTAIN THIS MINDSET.
    Starting every thing is very easy but difficult to maintain for long time.
    For example we start exercise to reduce fat but could not continue more than a week.

    FOR INVESTMENT ALSO WE NEED TO FIX OUR MINDSET TO MAINTAIN IT FOR LONG TIME.

    IT IS VERY TRUE THAT KNOWLEDGE AND ASSETS CAN NOT BULT IN SHORT TIME. IT’S REQUIRED YEAR AFTER YEAR.

    THOUGH WE UNDERSTAND THE CORRECT WAY OF INVESTMENT BY READING YOUR BLOG BUT WE ARE UNABLE TO CREATE ASSET BECAUSE WE ARE UNABLE TO STICK ON MIND SET.

  9. সদা পরিবর্তনশীল আর্থিক ব্যবস্থার বিষয়ে ওয়াকিবহাল থাকা খুব সহজ নয়। তাই সঠিক তথ্য ও পরামর্শের গুরুত্ব অপরিসীম। এক্ষেত্রে আপনার এবং আপনার সহকর্মীদের অবদান প্রশংসনীয়।

  10. Sir আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ ।
    কুকুরের উদাহরণ টা আপনি যে ভাবে দিয়ে বুঝতে সুবিধা করলেন ।
    আমাদের প্রতেকের উচিত সঠিক কোনো বিষয়ে আলোচনা বা জানতে হলে সেই বিষয়ের ডাক্তার এর কাছে গিয়ে পরামর্শ করা। ও সঠিক জ্ঞান অর্জন করা ও সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়া ।।
    আবার ও অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই আপনাকে ।।
    ভাল থাকবেন আপনি ।।

  11. Excellent article with understandable examples.Analysis of psychology is a great task, with this mindset can be inclined . But always your advice is essential to fulfil financial goal. Thanks for this article for wide circulation. Your effort always enrich us.

  12. Arindam Bhattacharya

    The great philosopher Herodotus Quotation – “CHANGE IS THE ONLY UNCHANGING FACTOR OF OUR CHANGING SOCIETY”.
    It may release 800 years or 500 years back by the great philosopher.
    We should keep ourselves changing with the changing atmosphere of society.
    But at the time of Investment we like to bind ourselves in contemporary method of Investment. Sometimes we don’t bother to take advice on investment from a adviser due to ego or something else. But its wrong. So as we change everything in our life as per socio-economic demand we should change our thinking on spending, saving and mindset.
    Thanks Ashoke Da for guiding us.

  13. খুব সুন্দর ভাবে বলেছেন। জেনে শুনে ও আমরা অনেক সময় investment ব্যপারে tradition ভাঙতে পারিনা । অথচ ধুতি ছেড়ে প্যান্ট সার্ট বা অধুনা লুনগি পায়জামা ছেড়ে বাড়মুডা য় চলে এসেছি। Yes We do believe that we have to update ourselves about different types of investment options and taking the right one . আপনাকে ধন্যবাদ এই রকম একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করা র জন্য।

  14. এক কথায় অসাধারণ উপমা।অনেক কিছু শেখার আছে,তবে অকপটে স্বীকার করছি আরও কিছু দিন লাগবে আমার।তবে এটাও ঠিক,না শেখা অবধি আপনিও ছাড়বেন না।

  15. Financial advisory and psychological analytical advisory দুটো মিলিয়ে যে অসাধারণ output তা তুমি এতো সুন্দর করে describe করেছো , আধুনিক যুগ এর মানুষ দের বোঝা খুব important. Tradition ধরে রাখা খুব e গুরুত্বপূর্ণ কিন্তু এগিয়ে যাওয়া ও প্রয়োজন . সেই mindset টা খুব এ সুন্দর করে তুলে ধরেছো |

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error:
Scroll to Top