It’s Time To Reset, Rethink & Reposition

 

একটা খুব পুরনো প্রচলিত কথা আছে , “ভাবিয়া করিও  কাজ করিয়া ভাবিও না”। দৈনন্দিন ব্যস্ততায় আমরা হয়ত অনেক সময়ই হয়ে যায় কি এইটা ভাবার সেভাবে সময় আমাদের হয়  না। যার ফলে Important বিষয় যতখ্যন না Urgent হয়ে সামনে আসছে ততখ্যন পর্যন্ত অনেকের Action সেদিকে যায় না। অথচ এটাও আমরা শুনেছি “If your thoughts are not right, your actions won’t be right.” এখন তো হাতে সময় হয়েছে, দেখুন একটা বিষয় বলছি, বিষয় টা  নিয়ে সত্যিই ভাবা উচিত কি না, সেটা ভাবতে অনুরোধ রইল ।

Continue reading

One Concept & Many Solution

 

গত সপ্তাহে Blog এ “A LIFE CHANGING PASSIVE INCOME GENERATION IDEA YOU NEVER KNEW “এই Article টা পড়ে অনেকেই খুব Excited, অনেকেরই বেশ ভাল লেগেছে বলে জানিয়েছেন। অনেকেই ঐ অসাধারণ Concept টার সঙ্গে যুক্ত হবেন বলে Confirmation ও দিয়েছেন।অনেকের অনেক  প্রশ্ন আমার কাছে এসেছে। মোটামুটি ভাবে সকলের একাটাই জিজ্ঞাস্য কোন কোন ক্ষেত্রে এই Concept টা তাদের Solution দিতে পারবে। (যদি আপনি কোন ভাবে Article তা Miss করে থাকেন, তাহলে আগে এখানে CLICK করে Article তা পড়ে নিন, তারপর এই Article টা পরবেন)।

Continue reading

A Life Changing Passive Income Generation Idea You Never Knew

 

  • আচ্ছা আপনি ধরুন insurance এর কোন Money Back বা Endowment Plan এ Long Term এর জন্য Invest করতে চান, তখন কি দেখেন? কত দিচ্ছি এবং বিনিময়ে কত পাচ্ছি, তাই তো?
  • কোন Fixed Deposit করতে চলেছেন, কি দেখেন Maturity তে কত পাওয়া যাবে তাই তো?
  • কোন Pension Plan এ Invest করতে চলেছেন, তখন কি দেখেন? মাসে কত করে Pension পাওয়া যাবে? তাই তো?
  • কোন Annuity Plan এ Invest করতে চলেছেন সেখানেও সকলে কি দেখেন? কত পাব? তাই তো?

যদি আপনি Mutual Fund এ Invest করে এই উপরের সব Avenue গুলোর থেকে আরও Better way তে অনেক বেশি Tax Effective ভাবে কত দিয়ে কত পাবেন সেটা আগে থেকেই জেনে যেতে পারেন তাহলে কেমন হয়? খুব ভালো হয় তাই না? ব্যপারটা তাহলে বুঝে নিন।

Continue reading

Interest Rates Are Unlikely To Go Up In The Future

 

আজ বেশিরভাগ মানুষ সব থেকে যে অসুবিধাটা বেশি Face করছেন সেটা হল Interest Rate ক্রমাগত কমে যাওয়া। আজ যারা Bank, Post Office, LIC, PPF এগুলো ছাড়া আর কিছুই বুঝতে চান না বা মন থেকে ঠিক মেনে নিতে পারেন না তারা আজ বেশ চাপের মধ্যেই  রয়েছেন। কি করব বুঝতে পারছেন না।বিশেষ করে Senior Citizen দের তো ভীষণ Problem। তাহলে কি করনীয়? কি করলে Safe & Secure way তে একটু বেশি Interest বা Return পেতে পারবেন? 

Continue reading

The Unfortunate Truth Where 76% Of The Indian Population Do Not Understand About The Basic Financial Concepts

একটা Survey র Result এ দেখাযাচ্ছে যে “In India 76% if It’s population does not understand even the basic financial concept।” এই 76% মানুষের মধ্যে অনেক সংখ্যক মানুষ আছেন যাদের Earning আছে, তারাই এই Basic Awerness না থাকার কারনে সবথেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হন।  কি কি ভুল এই মানুষেরা সাধারনত করেন, চলুন খুব সংক্ষ্যেপে Just ধরিয়ে দিচ্ছি।

Continue reading

Mutual Fund Is Not An OTC Product [In English]

 

 

“Mutual fund is not an OTC product, it is an advice based product” – why am I saying this? I will try to make you understand this as quickly as possible. People who want to drive their mutual fund journey all by themselves mainly focus on the mutual fund names that they see in websites, newspaper, hear from some so-called “expert” or decide by seeing their past performance and returns. They don’t pay attention to many technically sound funds which have a huge possibility of good performance in the future.

Continue reading

Mutual Fund Is Not An OTC Product [In Bengali]

“Mutual fund product is not at all OTC Product, it is advised Product”- কেন এই কথাটা বলছি। আসুন যতটা ছোটো করে সম্ভব নিজের অভিজ্ঞতা দিয়ে বোঝানোর চেষ্টা করছি। Mutual Fund এর গাড়িটা যারা নিজেরা Drive করতে চান তারা সাধারনত যে Fund গুলোর নাম বিভিন্ন Website এ, Paper এ, বিভিন্ন কাগুজে Expert দের Opinon এ, সর্বপরি Past Performance history তে উপরের দিকে থাকে তাকে নিয়েই নাচানাচি করে থাকেন। Technically Sound Fund, যার ভবিষ্যতে Better Preform করার Probability অনেক বেশি সেদিকে ঘুরেও দেখতে চান না।

Continue reading

Why People Feel Bank FD & Bank Are Safer Options [In English]

 

 

People feel safety and comfort in Bank FDs OR they believe that their money is safe in the banks. Why?

I will answer that later…

Let us go into history first – Somnath temple was believed to have been built around 4th century AD. In those days there were no banks, so people use to deposit their earnings / Savings mostly in the form of gold coins or ornaments in the temples. Maybe in those days also there were thieves around but nodoby dared to steal from the temple. So people felt that temples were the safest place to keep their earnings / Savings. And maybe this lasted for almost 600 years.

In the 11th century, Mahmud of Gazni first invaded and looted the Somnath temple. It was rebuilt and looted for 17 times. Even then people used to deposit their earnings / Savings in the temple. WHY?

Because of cognitive bias.

It was hardcored in the people’s mind that their earnings / Savings were safe in temples. Because their forefathers did the same thing and they just followed what their forefathers did. Without considering the current situation prevalent then!

Now, it was common sense that after being looted for 1st, 2nd, 3rd time, people should have tried to find some alternative to safeguard their earnings /Savings. But, they still had faith in the temples. Of course, few might have found some alternative, maybe digging a pit and burying their gold coins and ornaments. But, I think they were very few or else there was no point looting the same temple for 17 times.

Similarly, today we see so many Mahmud of Gaznis in the guise of Vijay Malaya, Nirav Modi who have looted the banks and fled the country. Somnath was looted only 17 times, but we don’t know how many times our banks have been already looted. But, people feel that their money is safe in the banks. Just like the people of Somnath felt that their gold coins and ornaments were safe in the temple.

So, for those who believe that bank FDs are safe, your safety is limited to only Rs. 1 lakh. Think twice!

It is high time that you come out of this bias and start exploring other alternatives to park your hard earned earnings / Savings.

 

Why People Feel Bank FD & Bank Are Safer Options [In Bengali]

 

ইতিহাস ঘাঁটলে দেখা যায় মানুষের বিশ্বাস যে 4th Century AD তে সোমনাথ Temple তৈরী হয়েছিলো। সেই সময় কোনো রকম Bank ছিলো না। তখন মানুষ তাদের Savings মানে সোনা, গহনা সব রেখে দিতো ঐ সোমনাথ মন্দিরে। ঐ সময়ে তাদের বিশ্বাস ছিলো ঠাকুরের মন্দির থেকে কেউ কখনো চুরি করবে না। সত্যি বলতে কি চুরিও হতো না। কারন কারুর তখন সাহসই ছিলো না মন্দিরের ভিতরে ঢুকে চুরি করার।এই ভাবে ধীরে ধীরে মানুষের মনেও বিশ্বাস জন্মে গেল যে মন্দির মানে Safe Place। আনুমানিক প্রায় 600 বছর এই বিশ্বসের ওপরই এইভাবেই চলছিলো।

তারপর 11th Century তে গজনীর সুলতান প্রথম এই মন্দির লুট করে সব গহনা ও টাকা পয়সা নিয়ে চলে যায় তার দেশে। তারপর বিভিন্ন দেশের সুলতানরা বিভিন্ন সময়ে তৎকালীন মন্দিরগুলোকে ( সোমনাথ মন্দির সহ ) লুট করে মানুষদের সর্বশান্ত করে দেয়। একা সোমনাথ মন্দিরই 17 বার লুণ্ঠিত হয়। কিন্তু দেখা গেছে তারপরেও আবার মানুষরাই ঐ মন্দিরেই তাদের সব সম্পদ রখত। এটাই হলো Mindset বা Biasness। Behavioral Researcher রা এটাকে বলেন Cognitive Bias.   

এই Bias ধারনায় যখন কেউ তার অজান্তেই আক্রান্ত হন তখন তিনি তাঁর অজান্তেই এই বিশ্বাসে আবদ্ধ হয়ে যান যে মন্দির Safe Place, ঠাকুরের পূজোয় কোনো খামতি হওয়ায় ঐ চুরি হয়েছে, “মন্দির Safe Place” । তাদের পূর্বপুরুষরা যেটা বিশ্বাস করতেন তাতে কোনো ভুল ছিল না। প্রথম বার, দ্বিতীয় বার, তৃতীয় বার এই ভবে বার বার লুঠ হওয়ার পরেও বেশির ভাগ মানুষ যারা ঐ Biasness এ আক্রান্ত ছিলেন তারা কেউ কোনো Alternative খোঁজেন নি। কিছু ব্যক্তি পরে শুরু করলেন মাটির তলায় সব সম্পদ পুঁতে রাখা।

একইভবে বিভিন্ন গজনীর সুলতানরা আজ বিভিন্ন ছদ্মনামে যেমন- “Nirav Modi”, “Vijay Malia” প্রভৃতি নাম নিয়ে মন্দিরের যায়গায় Bank লুঠ করছে। ঐ সময়ে যেমন মন্দির লুঠ করার পর তারা আবার বিদেশে পালিয়ে যেত আজ এরাও ঠিক তাইই করছে। তখন তো সোমনাথ মন্দির 17 বার লুঠ হয়েছিলো, আজ আমরা জানিও না এর আগে Bank এরকম কতবার লুঠ হয়েছে। তবু আজও বহু মানুষের বব্ধমূল ধরনা Bank এ থাকা টাকা মানে গচ্ছিত টাকা এবং Safe। মাথায় রাখতে হবে 1 লাখ টাকা পর্য্যন্তই Safe।

আমার অনুরোধ Alternative Option গুলো Bias Free হয়ে বিচার করে দেখে তবে সিদ্ধান্ত নিন।

আপনাদের মতামত জানতে পারলে ভলো লাগবে। 

6 Big Mistake & Their Impact In Finance

 

Life এ যে কোনো প্রয়োজনীয় কাজ যদি যে সময়ে সেটা করা উচিৎ সেটা যে কোনো কারনেই  যদি না করা হয় তাহলে পরে তার জন্য অনেক পস্তাতে হয়। আর Personal Finance এ সঠিক কাজ সঠিক সময়ে না করা হলে পরে পস্তাতে নয় চরম ভুগতে হয়। কয়েকটা ঐ রকম Mistake আমি Just ধরিয়ে দিচ্ছি।

Continue reading